সামসুল আলম দোয়েল এর ব্লগ

সারারাত জেগে ইবাদত: সুন্নাহর মানদন্ডে

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ০১ মার্চ, ২০১৭, ০১:৫৯:৩৩ রাত

তারীখে বাগদাদে ইমাম আবু হানিফা (রহ.) সম্পর্কে বলা হয়েছে, তিনি একাধারে চল্লিশবছর এশার অযুতে ফযরের সালাত পড়েছেন এবং এক রাকাতে এক খতম কুরআন পড়তেন। এই ধরণের আরো ১৮ জনের মতো ব্যক্তির ব্যাপারে বক্তব্য পাওয়া যায় যে, তারা কেউ ৪ বছর কেউ ১২ বছর কেউ ২০ বা ৪০ বছর এশার অযুতে ফযরের সালাত পড়তেন। কেউ সারাবছর রোযা রাখতেন, কেউ এক রাকা'আতে বা দুই রাকা'আতে বা প্রতিরাতে এক খতম কুরআন করতেন। নিচে দেখবো...

বাকিটুকু পড়ুন | |

ব্যবসায় সততা ও আমানতদারীতা

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:৫৬:১৩ রাত

আমার এক মামা সম্পর্কীয় পরিচিতজন বৈশাখীমেলায় যৌথভাবে তরমুজের ব্যবসায় নেমেছিলেন। ময়মনসিংহ থেকে ট্রাকে করে এনে পাশাপশি দুটো মেলায় মোট চারদিনের দোকানদারী। মেলার পর মামাকে জিগ্যেস করেছিলাম, ব্যবসা কেমন হলো? লাভ কী রকম? মামা আমাকে হতাশ কন্ঠে বললেন-
লাভ হয় নি, জনপ্রতি হাজারখানেক টাকা লস।
যতটা হতাশ হওয়ার কথা, মুখের অভিব্যক্তিতে ততটা না হওয়াতে বলে ফেললাম, তাতে মনে হয় আপনার তেমন...

বাকিটুকু পড়ুন | |

বন্ধুত্ব কার সাথে এবং ফেতনারযুগে মানুষের সংশ্রব থেকে দুরে থাকা

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৫:২০:০২ সকাল

বন্ধুর দোকানে আমার একটা জরুরী ফাইল জমা রেখে ছিলাম। হঠাৎ করেই প্রয়োজন পড়ে যায়, তাই ফোন করে বন্ধুকে বললাম, তার পাশের কোনো দোকানদারের কাছে (যে আমার এলাকার) যেন ফাইলটা দিয়ে দেয়। বন্ধু একজনকে পেল যার বাড়ি আমার মহল্লার পাশের মহল্লায়। তার সাথে আমার ঘনিষ্টতা বা ওঠা-বসা নেই, শুধু এলাকার লোক হিসেবে পরিচিত।
পরদিন যখন বাজারে কাছে যাই, বন্ধু আমাকে হঠাৎ কথা প্রসঙ্গে বলল,
দোস্ত! তোমার বিদেশ...

বাকিটুকু পড়ুন | |

সংশোধন হওয়ার এখনই সময়!

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০১:০৫:২৩ রাত

সংশোধনের সময় এখনই! যখনই এই লেখাটি পড়া হচ্ছে। কেননা যে সময় চলে যায় তা আর ফেরানো যায় না। সুতরাং মৃত্যুর পূর্বেই জেনে নিন, কী আপনার পরিচয়? পৃথিবীতে কেনই বা এসেছিলেন!
কারণ
যেখানে চলে যাবেন, সেখান থেকে কেউ কখনো ফিরে নি! তাদের সাথে কী আচরণ করা হয়েছে বা তারা কিসের মুখোমুখি হয়েছে তা তারা আমাদের জানিয়ে দিতে পারে নি।
তাই-
যাচাই করে দেখুন আপনার বিশ্বাসের জায়গাটা কতটুকু মজবুত বা আস্থার...

বাকিটুকু পড়ুন | |

মৃতব্যক্তির সম্মানহানী বা লাশের অমর্যাদা না করা

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০২:৩৮:৫৯ রাত

মৃতব্যক্তির সম্মানহানী বা লাশের অমর্যাদা না করা:
কোন মুসলমানের জন্য কখনো শোভনীয় নয় এমন কিছু করা যাতে অপর কোন মুসলমান কষ্ট পায়। মুসলমান কখনো কোনো ফালতু কাজ করা বা কথা বলতে পারে না। সুতরাং কেউ মারা গেলে অযথা তার সম্পর্কে বিরূপ কিছু বলা, মৃতব্যক্তির সম্মানহানীকর কিছু করা শোভনীয় নয়। সে মুমিন হৌক আর কাফির হৌক, কেননা সে তার আসল স্থানে পৌছে গেছে, আর আমরা সেই আসল ঠিকানাটা জানি না।
বরং...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২১ আম্বিয়া:১-৫ (রাসূলুল্লাহ সা. গণক বা কবি নন))

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ২২ জানুয়ারি, ২০১৭, ০৩:৫০:৪০ রাত

بسم الله الرحمن الرحيم (পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি)
اقْتَرَبَ لِلنَّاسِ حِسَابُهُمْ وَهُمْ فِي غَفْلَةٍ مُعْرِضُونَ
২১:১. মানুষের হিসাব-নিকাশের সময় আসন্ন, অথচ ওরা উদাসীনতায় মুখ ফিরিয়ে রয়েছে।
তাফসীর: আল্লাহর কাছে মানুষের জবাবদিহিতার সময় বা মানুষের হিসাব গ্রহণের সময় অতি সন্নিকটে। এখানে হিসাবের সময় বলতে কিয়ামত; যা প্রতি সেকেন্ড নিকটবর্তী হয়ে চলেছে। আর প্রত্যেক ব্যক্তির মৃত্যু...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ৫২-৫৫ (জাহান্নাম কাফিরদের পরিবেষ্টন করে আছে)

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ১১:২৯:৫৩ রাত

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
قُلْ كَفَىٰ بِاللَّهِ بَيْنِي وَبَيْنَكُمْ شَهِيدًا ۖ يَعْلَمُ مَا فِي السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضِ ۗ وَالَّذِينَ آمَنُوا بِالْبَاطِلِ وَكَفَرُوا بِاللَّهِ أُولَٰئِكَ هُمُ الْخَاسِرُونَ
৫২. (হে নবী)বলুন, আমার মধ্যে ও তোমাদের মধ্যে আল্লাহই সাক্ষীরূপে যথেষ্ট। তিনি জানেন যা কিছু নভোমন্ডলে ও ভূ-মন্ডলে আছে। আর যারা মিথ্যায় বিশ্বাস করে ও আল্লাহকে অস্বীকার করে, তারাই ক্ষতিগ্রস্ত।
তাফসীর: মক্কার মুশরিকরা...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ৪৮-৫১ (নিরক্ষরতা নবীর একটি গূণ আর কুরআন হলো শ্রেষ্ঠ মু'জিযা)

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১৫ জানুয়ারি, ২০১৭, ০৬:৪৭:০৬ সন্ধ্যা

পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে-
وَمَا كُنْتَ تَتْلُو مِنْ قَبْلِهِ مِنْ كِتَابٍ وَلَا تَخُطُّهُ بِيَمِينِكَ ۖ إِذًا لَارْتَابَ الْمُبْطِلُونَ
৪৮: তুমি তো এর পূর্বে কোন গ্রন্থ পাঠ করতে না এবং তা নিজ হাতে লিখতেও না যে, মিথ্যাবাদীরা (তা দেখে) সন্দেহ পোষণ করবে।
তাফসীর: রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে সূরা আরাফের ১৫৭, ১৫৮ আয়াতে ওম্মী নবী (নিরক্ষর) হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। এটা তার একটি বিশেষ...

বাকিটুকু পড়ুন | |

বিবিসি বাংলার খবর বনাম আমাদের সমাজে পিতামাতার প্রতি ব্যবহার! (ইসলাম কী বলে?)

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১৩ জানুয়ারি, ২০১৭, ১০:৫৪:২৯ রাত

বিবিসি বাংলার খবর পড়ে ছোটবেলার একটা ঘটনা মনে পড়ে গেল। বন্ধু জাকিরদের বাড়িতে বেড়াতে গেছি (হয়তো ক্লাস টেনে পড়ি)। মাগরিবের পর জাকির জানালো, একজনের বাড়িতে যেতে হবে এক বৃদ্ধাকে তাওবা পড়ানোর জন্য। ইসলাম সম্পর্কে তখন গভীর জ্ঞান না থাকলেও এইটুকু বুঝতে কোনো অসুবিধা হয় নি যে, তাওবা করার জিনিস, পড়ানোর জিনিস নয়! জাকির বলল-
ওসব রাখো! ওরা দ্বীনের কোনো ধারণা রাখে না, তাওবা এসতেগফার কী করে...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ২৮-৩৫ (পৃথিবীতে প্রথম সমকামিতা চালু করে লূত আ.-এর সমপ্রদায়)

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ১২ জানুয়ারি, ২০১৭, ০৩:০৯:৪২ রাত

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম
وَلُوطًا إِذْ قَالَ لِقَوْمِهِ إِنَّكُمْ لَتَأْتُونَ الْفَاحِشَةَ مَا سَبَقَكُمْ بِهَا مِنْ أَحَدٍ مِنَ الْعَالَمِينَ
২৮. স্মরণ কর লূতের কথা, সে তার সম্প্রদায়কে বলেছিল, ‘তোমরা তো এমন অশ্লীল কর্ম করছ, যা তোমাদের পূর্বে বিশ্বে কেউ করে নি।
তাফসীর: হযরত লুত(আHappy হযরত ইব্রাহিমের(আHappy ভ্রাতুষ্পুত্র।তার পিতার নাম ছিল হারান।হযরত লুত(আHappyশৈশবে হযরত ইব্রাহিম(আHappyএরই তত্বাবধানে পালিত হন।হযরত লুত(আHappyও...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত (১৬-১৮): নবীদের কাজ দাওয়াত দেয়া, হিদায়াত দান করা একমাত্র আল্লাহর এখতিয়ারভুক্ত।

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ০১ জানুয়ারি, ২০১৭, ০৩:১১:৪৭ রাত

পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে (শুরু করছি)
وَإِبْرَاهِيمَ إِذْ قَالَ لِقَوْمِهِ اعْبُدُوا اللَّهَ وَاتَّقُوهُ ۖ ذَٰلِكُمْ خَيْرٌ لَكُمْ إِنْ كُنْتُمْ تَعْلَمُونَ
১৬.স্মরণ কর ইব্রাহীমের কথা, যখন সে তার সম্প্রদায়কে বলেছিল, ‘তোমরা আল্লাহর উপাসনা কর এবং তাঁকে ভয় কর; তোমাদের জন্য এটাই উত্তম যদি তোমরা জানতে।
إِنَّمَا تَعْبُدُونَ مِنْ دُونِ اللَّهِ أَوْثَانًا وَتَخْلُقُونَ إِفْكًا ۚ إِنَّ الَّذِينَ تَعْبُدُونَ مِنْ دُونِ اللَّهِ لَا يَمْلِكُونَ...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ১৪-১৫ (নূহ আ.)

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০৩:০৫:৫২ রাত

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহ নামে (শুরু করছি)
وَلَقَدْ أَرْسَلْنَا نُوحًا إِلَىٰ قَوْمِهِ فَلَبِثَ فِيهِمْ أَلْفَ سَنَةٍ إِلَّا خَمْسِينَ عَامًا فَأَخَذَهُمُ الطُّوفَانُ وَهُمْ ظَالِمُونَ
১৪. আমি অবশ্যই নূহকে তার সম্প্রদায়ের নিকট প্রেরণ করেছিলাম; সে ওদের মধ্যে অবস্থান করেছিল সাড়ে ন’শ বছর। অতঃপর বন্যা ওদেরকে গ্রাস করল; কারণ ওরা ছিল সীমালংঘনকারী।
فَأَنْجَيْنَاهُ وَأَصْحَابَ السَّفِينَةِ وَجَعَلْنَاهَا...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ১২-১৩ (তৃতীয় পর্ব): পরকালে কেউ কারো বোঝা বহন করবে না

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০৩:০০:৪৬ রাত

পরম করুনাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে-
وَقَالَ الَّذِينَ كَفَرُوا لِلَّذِينَ آمَنُوا اتَّبِعُوا سَبِيلَنَا وَلْنَحْمِلْ خَطَايَاكُمْ وَمَا هُمْ بِحَامِلِينَ مِنْ خَطَايَاهُمْ مِنْ شَيْءٍ ۖ إِنَّهُمْ لَكَاذِبُونَ
১২. কাফিরগণ ঈমানদারদের বলে, ‘তোমরা আমাদের পথ অনুসরণ করো; আমরা তোমাদের পাপভার বহন করব! কিন্তু ওরা তো তোমাদের পাপভারের কিছুই বহন করবে না। ওরা অবশ্যই মিথ্যাবাদী।
তাফসীর: কাফিররা মিথ্যাবাদী, কেননা তারা দাবি করে- যদি...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবুত: ৮-১১ (দ্বিতীয় পর্ব) পিতা-মাতার আনুগত্য, ঈমানের পরীক্ষা

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০২:৪৫:৩৯ রাত

بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ
পরম করুনাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে (শুরু করছি)
وَوَصَّيْنَا الْإِنْسَانَ بِوَالِدَيْهِ حُسْنًا ۖ وَإِنْ جَاهَدَاكَ لِتُشْرِكَ بِي مَا لَيْسَ لَكَ بِهِ عِلْمٌ فَلَا تُطِعْهُمَا ۚ إِلَيَّ مَرْجِعُكُمْ فَأُنَبِّئُكُمْ بِمَا كُنْتُمْ تَعْمَلُونَ
৮. আমি মানুষকে পিতা-মাতার সাথে সদ্ব্যবহার করার জোর নির্দেশ দিয়েছি। যদি তারা তোমাকে আমার সাথে এমন কিছু শরীক করার জোর প্রচেষ্টা চালায়, যার সম্পর্কে তোমার কোন...

বাকিটুকু পড়ুন | |

তাফসীর: সূরা ২৯ আনকাবূত: (১-৭) ১ম পর্ব

লিখেছেন সামসুল আলম দোয়েল ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০২:৩১:০৭ রাত

بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ
পরম করুনাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে (শুরু করছি)
الم ﴿
১. আলিফ লাম মীম। এটা হরূফে মুকাত্ত্বয়াতের (বিচ্ছিন্ন বর্ণ) অন্তর্ভূক্ত। এর অর্থ একমাত্র আল্লাহই ভালো জানেন।
أَحَسِبَ النَّاسُ أَنْ يُتْرَكُوا أَنْ يَقُولُوا آمَنَّا وَهُمْ لَا يُفْتَنُونَ
২. মানুষ কি মনে করে যে, তারা একথা বলেই অব্যাহতি পেয়ে যাবে যে, "আমরা বিশ্বাস করি" এবং তাদেরকে পরীক্ষা করা হবে না?
তাফসীর: মৌখিকভাবে...

বাকিটুকু পড়ুন | |