নাজনীন আক্তার হ্যাপীর শেষ আকুতি !!

লিখেছেন Mujahid Billah ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৫:৩৮ বিকাল

শোবিজ আঙ্গনের আলোচিত ও সমালোচিত মডেল, অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপী। ক্রিকেটার রুবেলের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়েও কম জলঘোলা হয়নি। এরপর হঠাৎই শোবিজ দুনিয়া থেকে হারিয়ে গেলেন। বেছে নেন ধর্মকর্মের পথ। এরপর থেকে অামূল পরিবর্তন। এক সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী এখন হিজাবী ও ধর্মপরায়ণ নারী।
মিডিয়া ছেড়ে দূরে সরে গেলেও বিতর্কিত তাকে ছাড়েনি। তবে এখন তিনি বিয়ে করে সংসার ধর্মে মনোযোগী হয়েছেন।...

এই ষড়যন্ত্রের শেষ দেখতে চাই

লিখেছেন ইগলের চোখ ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৩:১৬ দুপুর


আমরা বাঙালি। বাংলা আমাদের ভাষা। আর বাংলাদেশ আমাদের দেশ। আমাদের হাজার বছরের ইতিহাস আছে, ঐতিহ্য আছে, সংস্কৃতি আছে। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য যে আমাদের এই সংস্কৃতিকে ভুলিয়ে দেওয়া, আমাদের নিজেদের ভাষাকে ভুলিয়ে দেওয়ার এক গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছিল, ঠিক যখন ঐ পাকিস্তান নামে একটি দেশ হ’ল— যার দুটি অংশ। প্রায় হাজার/১২০০ মাইল দূরে একটা পূর্ব, আরেকটা পশ্চিম পাকিস্তান গড়ে তোলা হল। বাঙালিরাই...

বাংলাদেশসীমান্তে হত্যা করবে ভারতীয় বিএসএফ। কিন্তু প্রতিবাদ ও করা যাবে না।

লিখেছেন মাহফুজ মুহন ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০২:৫৬ দুপুর

২৫ ফেব্রুয়ারি,২০১৭ শনিবার গুলশানের একটি সেন্টারে ‘সীমান্ত হত্যা রাষ্ট্রের দায়’ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করে জনগণতান্ত্রিক আন্দোলন নামের একটি সংগঠন।
প্রবন্ধ উপস্থাপনের আগেই পুলিশের বাধায় সেমিনার বন্ধ হয়ে যায়।
সকাল ১০ টায় সেমিনার শুরুর সঙ্গে সঙ্গে গুলশান থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা অনুষ্টানে গিয়ে তা বন্ধ করতে বলেন।
দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমান...

"আসমানি সাহায্যের প্রতিক্ষায় (বাস্তবতার আলোকে)"

লিখেছেন মাহবুবা সুলতানা লায়লা ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০২:৫৪ দুপুর

পৃথিবীতে কোন মানুষই পরিপূর্ণ সুখী নয়! সবার মাঝেই আছে কোন না কোন অপূর্ণতা! হোক তা ছোট থেকে ছোট বা বড় থেকেও বড়!পৃথিবীতে নারী জাতিকে মা বানিয়ে আর পুরুষকে বাবার আসনে বসিয়ে চলছে আল্লাহর দেয়া নিয়মে! এরই মাঝে কত ঘটনা, দূর্ঘটনা, কত অমানুষিকতা, কত অশালীনতা হচ্ছে তার কোনই ইয়াত্তা নেই! অনেক মায়ের শুধু ছেলে সন্তান আছে মেয়ে নেই সে কারনে তিনি ভোগেন মেয়ে না থাকার কষ্টে! অথচ একটু বিবেগ খাঁটিয়ে...

পথ চলতে # মুক্তিযোদ্ধাদের মুক্তিযুদ্ধ (১)

লিখেছেন চোরাবালি ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০২:২৮ দুপুর

গতকাল ফিরছিলাম ঢাকা থেকে। ট্রেনের মধ্যে সুলভ শ্রেণী এমনিতেই একটু জাকজমক পূর্ণ তার পর কিছু ক্ষণ পর পর ভিক্ষুক আর হকার তো লেগেই সাথে। মাঝে মাঝে বেশ বিনোদনও পাওয়া যায় এসব থেকে। এই বাদেন, অন্ধের হাতে দান করবেন, কমলা নিবেন ভাই কমলা, বুট পালিশ, হিজড়া এসে ১০টাকা দে--------------------------------------- । যদি কেও বিরক্তভাবে নেন আপনার জার্নির ১২টা বেজে ১৩টা পার হয় যাবে। তাই আমি সব সময়ই বিনোদন হিসেবে নিয়ে থাকি।...

তুমি আছ অন্তরে

লিখেছেন সাগরের ঢেউ ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০১:২২ দুপুর


আমার নিঃসঙ্গ সময় গুলো
তুমি ভরিয়ে দিয়েছিলে অনাবিল আনন্দে ।
সেই আনন্দে আমি ভুলেছিলাম
আমার যন্ত্রনাময় দিনগুলো ।
কখনো ভুল করে ও মনে হয়নি তুমি
হারিয়ে যাবে আমাকে নিঃস্ব করে ।

এক ধনী লোকের কাহিনী

লিখেছেন দ্য স্লেভ ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:৫২ দুপুর


জাফর মিয়া বলদপুর গ্রামের চায়ের দোকানদার। চা ভালো বানায় তাই লোকজন আসে বেশ। চা উপভোগ করে। জাফর মিয়া বিড়ি বিক্রী করেনা কারন এটা নেশাদার দ্রব্য এবং ক্ষতিকর,সে পান বিক্রী করলেও জর্দা বিক্রী করেনা কারন সেখানেও তামাক রয়েছে,যা নেশাকর এবং ক্ষতির মাত্রা বৈজ্ঞানিক পরিক্ষায় প্রমানিত হওয়ার কারনে মুস্তাহিদগন হারাম ঘোষনা করেছেন তামাকজাত দ্রব্যসমূহকে। জাফর মিয়া ৫ ওয়াক্ত...

দেশের গণতন্ত্র উলঙ্গ বলার সেই শিশুটা কই

লিখেছেন কাব্যগাথা ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৬:২৮ সকাল

রাজা উলঙ্গ,তবুও মোসাহেবরা সব করছিলো চিৎকার,
বল্ছিলো, রাজা মশাইয়ের পোশাকটা কি চমৎকার!
তীক্ষ প্রশ্নটা করেছিল এক শিশু নির্ভীক সত্যতায়,
রাজা তুমিতো নেংটো, তোমার কাপড় কোথায়?
***
বাংলাদেশ হয়েছে আজ রূপকথার সে রাজ্য,
মিথ্যার মুখোশ পড়েছে সবাই, সত্য পরিত্যাজ্য |

আমাদের পূর্ব পুরুষদের শত্রু-মিত্র পর্ব ৩৬

লিখেছেন আনিসুর রহমান ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৬:০১ সকাল

আমরা পূর্বেই বলে ছিলাম যে বাংলার সুলতান আলাউদ্দিন হোসেন শাহ কতৃক শ্রী চৈতন্যর সাহায্যে বৈষ্ণব মুভমেন্ট সৃষ্টির উদ্দেশ্য ছিল- এক, এই অঞ্চলের ইসলাম সম্পর্কে অজ্ঞ মুসলিমদের মাঝে পৌত্তিলোকতার বিষবাস্প ঢুকিয়ে দিয়ে অর্ধেক অর্ধেক গুষ্ঠি তৈরি করা যেমন লালন ফকীরের বাউল। এই মিশনে সে যে সফল হয়ে ছিল তার প্রমান আমরা পাই ১৯১১ সালের ভারতের আদমশুমারীর রিপোর্টে। এই রিপোর্টে বলা হয়েছে...

একশ' বছরের রাজনীতি: বই ডাওনলোড

লিখেছেন মুসা বিন মোস্তফা ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১১:২৯ রাত


মুখবন্ধ
বাংলা চৌদ্দ শতক জাতীয় উদযাপন পরিষদের প্রকাশনা কর্মসূচীর অন্যতম বিষয় ছিল এই অঞ্চলের গত একশ’ বছরের রাজনীতির ওপর একটি প্রামান্য ও তথ্যবহুল গ্রন্থ প্রণয়ন করা। বিষয়টি নিঃসন্দেহে অতিশয় পরিশ্রমসাধ্য, দুরূহ কাজ। কারণ বর্তমান সময়ে ইতিহাসের উপাদান নিরাশক্তভাবে উত্থাপন করার যে ঝুঁকি রয়েছে তা অতিক্রম করতে সহজে কেউ সাহসী হয় না। তাছাড়া জাতীয় ইতিহাসের প্রতিটি পর্যায়ে রাজনৈতিক...

''বি ডি আর বিদ্রোহের ভেতরের কথা''

লিখেছেন রঙ্গিন স্বপ্ন ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৮:২১ রাত


১) বিএনপি নেত্রী বললেন ফখরুদ্দীন- মঈন উদ্দীনের কাজকে বৈধতা দেওয়া হবে না, আওয়ামিলীগ নেত্রী বললেন- দেওয়া হবে। নির্বাচন সেদিনই হয়ে গেল। ২৯ ডিসেঃ ২০০৮ ছিল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হওয়ার দিন মাত্র। ''ফখরুদ্দীন- মঈন উদ্দীন'' তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে না শর্তে আওয়ামিলীগকে বিপুল আসনের সংখ্যা-গরিষ্ঠতায় ক্ষমতায় বসালো ( মরহুম আঃ জলীল, সাবেক সাঃ সম্পাদক- তিনি লন্ডনে বাংলা টিভির সাথে...

ভারতে পর্যটক গমনে শীর্ষস্থানে বাংলাদেশ

লিখেছেন ইগলের চোখ ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৩:৪৫ দুপুর

প্রতিবেশী দেশ হিসেবে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণীজ্য দিন দিন বেড়েই চলছে। এছারা চিকিৎসার প্রয়োজনেও অনেক বাঙ্গালীর গন্তব্য এখন ভারত। পাশাপাশি লেখাপড়ার উদ্দেশ্যে ও বন্ধু বা আত্নীয়স্বজনের সাথে দেখা করার জন্য ভারত যাচ্ছে অনেকেই। ভারত গমনের এই ধারাবাহিকতায় চলতি বছরে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যকে পেছনে ফেলে ভারতে পর্যটক গমনের দিক থেকে শীর্ষস্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। প্রথমবারের...

কোন মুসলিমই এই দাবীর বিরোধিতা করতে পারে না!!

লিখেছেন Mujahid Billah ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৩:৩১ দুপুর

বাংলাদেশে সুপ্রীম কোর্টের সামনে স্থাপিত ভাস্কর্য অপসারণের দাবীতে হেফাজতে ইসলাম ঢাকায় বায়তুল মোকাররম মসজিদের বাইরে বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করেছে। ঐ ভাস্কর্যটিকে একটি গ্রীক মূর্তি অ্যাখ্যা দিয়ে সংগঠনটি এটিকে সরিয়ে ফেলার দাবী জানাচ্ছে।
হায় আফসুস! মুসলিমরা আজ নাকে তেল দিয়ে ঘুমিয়ে আছে আর এদিক দিয়ে ইসলাম এবং মসুলমানদের শত্রুরা একের পর এক বাংলাদেশ থেকে ইসলাম নামক বট গাছ কে...

একটি কুপ্রথা : ফাতেহায়ে ইয়াজদহম পালন

লিখেছেন মুফতি যুবায়ের খান রাহমানী। ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১১:০৩ রাত


রবিউস সানীর এগার তারিখে অনেককে ফাতেহায়ে ইয়াজদহম (এগার তারিখের ফাতেহা) বা শায়খ আবদুল কাদের জীলানী রাহ.-এর ওফাত দিবস পালন করতে দেখা যায়। এ উপলক্ষে মসজিদে আলোকসজ্জা করা হয় এবং মাহফিল-মজলিসের আয়োজন করা হয়।
এটা একটা কু-রসম। ইসলামী শরীয়তে জন্মদিবস ও মৃত্যুদিবস পালনের নিয়ম নেই। নবী-রাসূল, খোলাফায়ে রাশেদীন ও সাহাবায়ে কেরাম আমাদের জন্য আদর্শ। তাঁদের কারোরই জন্মদিবস-মৃত্যুদিবস...

আমার গুনাহ এবং আমার অশ্রু............!

লিখেছেন মোঃ মাকছুদুর রহমান ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ০৯:৫২ রাত


গুনাহের ভারে একদিন আমি কেঁদে ওঠেছিলাম। আমার
চোখ দিয়ে অশ্রু গড়িয়ে পড়তে লাগল। তখন উষ্ণ
চোখের জল আমায় জিজ্ঞেস করে, "আল্লাহ'র বান্দা, তুমি
কাঁদছ কেনো?"
আমি বললাম, "তুমিও যে বয়ে এলে?"
সে বলে, "তোমার হৃদয়ের অগ্নি-উত্তাপ আমাকে